ভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস : রেনেঁসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী

ভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস : রেনেঁসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী : রেনেঁসা যুগে ইউরোপের পিতৃতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীদের নানাভাবে নিগৃহীত করা হত। প্রচলিত সমাজ ব্যবস্থায় নারীদের বিধি নিষেধের বেড়াজালে আটকে রাখা হত এবং পুরুষদের তুলনায় তাদের সামাজিক অবস্থান অনেক নীচে বিবেচনা করা হত। সামাজিক প্রত্যাশ্যা ছিল নারীরা সতী হবে, হবে বিনীত এবং নিভৃতচারী। কোন নারী সতীত্ব হারালে, অথবা সতীত্ব রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে অনুমিত হলে তাকে সরাসরি পতিতা হিসেবে চিহ্নিত ও নিগৃহীত করা হত।

রেনেসা যুগের অন্যতম প্রধান ইংরেজ নাট্যকার জন ওয়েবস্টারের The White Devil এবং The Duchess of Malfi নাটকে আমরা আত্ম-স্বাধীনতায় বিশ্বাসী দুই নারীকে নাটক দু’টির কেন্দ্রীয় চরিত্রে উপস্থাপিত দেখি, যাঁরা পিতৃতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থার বিরুদ্ধে স্বোচ্চার হয়েছেন, হয়েছেন সরাসরি বিদ্রোহী। নারীদের মূল্যায়নের ক্ষেত্রে সমসাময়িক নাট্যকারদের তুলনায় ওয়েবস্টারের দৃষ্টিভঙ্গি ও ধারণা ছিল উদার ও মানবিক, যা ভিটোরিয়া এবং ড্যাচেস অব মালফির রূপায়ণে প্রকাশিত হয়েছে। এই দুই নারী তাঁদের সাহসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে প্রচলিত সেই ধারণাকে চ্যালেঞ্জ করেছেন যাতে বলা হয়েছে সমাজের একমাত্র নিয়ন্ত্রক ও কেন্দ্র বিন্দু পুরুষ।

[ ভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস : রেনেঁসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী ]

বিদ্রোহী এই নারীদ্বয়ের কর্মকাণ্ডের সঠিক মূল্যায়নের প্রয়োজনে ঐ সময়ে প্রচলিত নারী-ভাবনা সম্পর্কে আলোচনা প্রাসঙ্গিক। Dymphana Callaghan Woman and Gender in Renaissance Tragedy গ্রন্থভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস রেনেসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী উল্লেখ করেছেন :

The dominant ideology of Jacobean England is profoundly hierarchical. It affirms the legitimacy of a patriarchal society in which power emanates from God the Father down through king and lord, to every man whose domain is woman, beast and nature. Such a hierarchy involves a highly conceptualized system of subordination supported by the providential hand of god himself. Crucially, within this universal hierarchy man held a central precious place

(9) ঐ সমাজে নারীদের বিবেচনা করা হত জন্মদাত্রী হিসেবে এক সুন্দর বস্তু। Ruth Kelso তাঁর Doctrine of the Lady of the Renaissance গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন, রেনেসা যুগের সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন নারীদের ওপর অর্পিত বিধি নিষেধ শিথিল করার ক্ষেত্রে তেমন কোন অবদান রাখেনি। রেনেসা যুগের তাত্ত্বিকদের সংজ্ঞায় নারী মানেই স্ত্রী। এর বাইরে তাদের কোন পরিচিতি নেই। এ প্রসঙ্গে Ruth Kelso-র মূল্যায়ন,

This meant that their virtues, defined in accordance with male needs were rational humanity, tender ness, temperance, modesty, discretion, constancy, love, silence gentler and passive qualities associated with nurturing activities in the domestic sphere

(26)। পুরুষদের জীবনে ব্যক্তিগত পূর্ণতা অর্জনের অধিকার ছিল, কিন্তু নারীদের ক্ষেত্রে তা অবদমিত রাখাই ছিল স্বাভাবিক। বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবার অর্থ পুরুষের কাছে নারীর আত্মসমর্পণ। একজন পুরুষ সমাজে নানা ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে পারত, কিন্তু একজন নারীকে অপরের ইচ্ছা অনিচ্ছার ওপর নির্ভর করতে হত। রেনেসা যুগে নারীর ক্ষেত্রে প্রধান দু’টি আবশ্যকতা ছিল সতীত্ব রক্ষা ও আনুগত্য প্রদর্শন। দুর্ভাগ্যক্রমে, পুরুষের চোখই নির্ধারণ করত কোন নারী সতী এবং কোন নারী পতিতা। একমাত্র সতীত্বের নিরিখেই তাদের সম্মান নির্ধারিত হত। নারী সমাজের শঠতা ও দ্বৈত মাপকাঠির শিকার হত।

The White Devil নাটকে দেখি, সামাজিক রীতি ভিটোরিয়ার প্রথম বিবাহে তাঁকে ফাঁদে ফেলেছে। একই সাথে তা তাঁকে ক্ষমতার অবস্থানেও নিয়ে যায়। বৃদ্ধ নপুংসক এক স্বামীর কাছে তাঁর পিতা তাঁকে বিক্রী করে দেন। Gayle Greene Women on Trial in Shakespeare and Webster: The Mettle of Sex গ্রন্থে এ প্রসঙ্গে উল্লেখ করেন: “then bartered by her brother to Brachiano-whom she might as well accept, in view

সাহিত্যে নারীজীবনের রূপায়ণ

of the alternatives-she is treated as a commodity by the men closest to her (14)। ক্যামিলোর সঙ্গে তাঁর বিবাহ সম্পূর্ণ হাস্যকর ও অগ্রহণযোগ্য। কিন্তু এটা কোন ভাবেই ব্রাশিয়ানোর সঙ্গে তাঁর অবৈধ সম্পর্ককে গ্রহণযোগ্য করেনা। ভিটোরিয়ার ভাই ফ্লামিনো নিজ স্বার্থ চরিতার্থে বোনের যৌনতাকে অপব্যবহার করে। এ প্রসঙ্গে Lee Bliss তাঁর The World’s Perspectives: John Webster and the Jacobean Drama গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন:

Flaminoe’s plots and comments all point toward a goal of expansive adultery, an arrangement from which he would profit as both pander and brother

(104)। ভাই মারসেলোকে ফ্লামিনো যুক্তি দেখায়, সৈনিক হয়ে জীবনে কোন লাভ নেই; কিন্তু পতিতার দালাল হয়ে তা আছে। এই ভূমিকায় সে সহসাই ডিউক অব ব্রাশিয়ানোর অধীনে চাকুরীতে পদোন্নতি লাভ করে। সামাজিকভাবে উঁচুতলায় উঠতে সে ভিটোরিয়াকে নির্দ্বিধায় ব্যবহার করে। ঐ উদ্দেশ্যে সে বোনকে উৎসর্গ করতে সর্বদাই প্রস্তুত। ফ্লামিনোর দৃঢ় সমর্থনে ভিক্টোরিয়া ও ব্রাশিয়ানোর মধ্যে গভীর অন্তরঙ্গতার সৃষ্টি হয় এবং অবৈধ সম্পর্কের মাধ্যমে তাঁরা দু’জনেই ব্যর্থ বিবাহের যন্ত্রণা ভুলে একে অপরের সান্নিধ্যে সুখের সন্ধান করেন।

Dena Goldberg Between Worlds: A Study of the Plays of John Webster গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন :

Rich widows were not uncommon in seventeenth-century England, and they were, almost by definition, a nuisance to men because they were the only women who were in a position to do as they pleased

(79) 1 পিতৃতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীদের এই ক্ষমতাকে সব সময় নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখা হয়েছে, কারণ ঐ ক্ষমতার কারণে সম্পত্তি ও অর্থের যে বৈভব তাদের করায়ত্ত ছিল তা পরিবারের পুরুষ সদস্যদের ক্ষেত্রেই বেশী মানানসই বলে বিবেচিত হত।

The Duchess of Malfi নাটকে ড্যাচেস তেমনই ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত ছিলেন এবং তাঁর দুই ভাই কার্ডিনাল ও ফার্ডিনান্ড সামাজিকভাবে বোনের তুলনায় নিম্নস্তরে অবস্থানের কারণে বোনের কর্তৃত্বকে সবসময় খাটো করার চেষ্টা করেছেন। সম্মিলিতভাবে দু’জনে প্রশ্ন তুলেছেন সঙ্গোপনে বোনের দ্বিতীয় বিবাহের নৈতিক ভিত্তির। যমজ ভাই ফার্ডিনান্ড বোনের দ্বিতীয় বিবাহের ব্যাপারে অযৌক্তিক ভাবে ক্ষিপ্ত হয়েছেন, যা বোনের প্রতি তাঁর অজাচারী অনুভূতির ঈঙ্গিতবহ। নাটকের দ্বিতীয় অঙ্কের পঞ্চম দৃশ্যে দেখি, বসোলার চিঠিতে ড্যাচেসের দ্বিতীয়

ডিটোরিয়া ও ড্যাচেস রেনেসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী

বিবাহের সংবাদ পেয়ে ফার্ডিনান্ড এতই ক্রুদ্ধ যে তিনি কার্ডিনালকে বলেন:

have this night digged up a mandrake. … And I am grown mad with it…. Read here-a sister damn’d: she’s loose i’ the hilts,/ Grown a notorious stumpet

(1-6)। পরবর্তীতে দেখি, ড্যাচেসের ওপর প্রতিশোধ নিতে তিনি তাঁকে হত্যা করতে চান:

here’s the cursed day/ To prompt my memory, and here ‘t shall stick/ Till of her bleeding heart I make a sponge / To wipe it out

(15-18)। ফার্ডিনান্ডের তীব্র আক্রোশ প্রতিফলিত হয় যখন তিনি ড্যাচেসের সব সম্পত্তি ধ্বংস করতে চান, উৎপাটিত করতে চান তাঁর বনরাজি এবং তাঁর ফসলের জমিকে রূপান্তরিত করতে চান ফিলা ভূমিতে। বোনের উদ্দে ফার্ডিনান্ডের সরাসরি বক্তব্য, যে নারী দ্বিতীয় বিবাহে উৎসাহী, সে অতিশয় কামুক প্রকৃতির। ড্যাচেস যখন যুক্তি দেখান যে অনেক কারিগরের হাত ঘুরলেই মুক্তা আরো মূল্যবান হয়ে ওঠে, ফার্ডিনাল্ডের তীর্যক জবাব, সে বিবেচনায় পতিতারাই সবচেয়ে মূল্যবান।

The White Devil নাটকে ফ্লামিনো তার সম্পদশালী বোনকে হিংসার চোখে দেখে, সর্বতোভাবে চেষ্টা করে বোনকে হেয় প্রতিপন্ন করতে। ব্রাশিয়ানোর সঙ্গে ভিটোরিয়ার প্রেমের সম্পর্ককে পার্থিব স্বার্থপর মানুষের অধঃপতিত সম্পর্কের স্তরে সে দেখতে চায়। ব্রাশিয়ানোকে সে বোঝাতে চায় যে ভিটোরিয়া চতুর এক নারী যাকে তার অনুগত ভৃত্য প্রভুর মনোরঞ্জনের জন্য এনে দিয়েছে। Dena Goldberg এ প্রসঙ্গে মন্তব্য করেছেন :

Detached and cynical Flamino finds neither beauty nor to be in the magnetic force drawing his sister and the Duke together

(25) ফ্লামিনোর দৃষ্টিতে, তার বোন ব্যভিচারী এক পতিতা এবং নারী মাত্রই চোরকাটা; তাদের মন যা চায় তাই তারা আঁকড়ে ধরে। পুরো নাটকেই আমরা ফ্লামিনোর নারী বিদ্বেষী বিভিন্ন মন্তব্য দেখি। নারীর ব্যাপারে এ ধরনের নেতিবাচক মনোভাব ওয়েবস্টারের The Duchess of Malfi নাটকেও লক্ষ্য করা যায়। ড্যাচেসের যমজ ভাই ফার্ডিনাল্ডের নারী সম্পর্কিত ভাবনা :

নারীর কাছে নিজের সম্ভ্রমের ব্যাপারে আস্থা রাখা পুরুষের বোকামী। নারী দুর্বল খড়ের এক নৌকার মত যা ডুবে যেতে পারে যে কোন মুহূর্তে।

ড্যাচেসের ভাই কার্ডিনালের আচরণে দেখা যায় নৈতিকতার দ্বৈত মাপকাঠি। বৃদ্ধ কট্রশিওর তরুণী বধূ জুলিয়ার সঙ্গে নিজের অবৈধ সম্পর্ক থাকা সত্ত্বেও তিনি তাঁর বোনকে কোন শারীরিক সম্পর্কে জড়াতে নিষেধাজ্ঞা জারী করেন। নাটকের প্রথম অঙ্কের প্রথম দৃশ্যে ক্রুদ্ধ ভাইদের শান্ত করতে ড্যাচেস যখন বলেন : “Will you hear me? / III never marry.” তাঁর এই বক্তব্য অবিশ্বাস করেন কার্ডিনাল এবং বলেন:

Somost widows say / But commonly that motion lasts no longer/ Than the turning of an hour-glass; the funeral sermon/ And it end both together” (300 303) |

দু’টি নাটকেই দেখি, পুরুষেরা নারীর যৌন আবেগকে অপরাধমূলক বিবেচনা করে। নারীর যৌন আচরণের ওপর হস্তক্ষেপ যেন পুরুষের সহজাত অধিকার। The White Devil নাটকে ভিটোরিয়ার বিচার দৃশ্যে আইনজীবীর যুক্তি:

For to sow kisses is to reap lechery, and I am sure a woman that will endure kisses, is half won.

The Duchess of Malfi নাটকে বিধবা ড্যাচেসের দ্বিতীয় স্বামী তাঁর এক বন্ধুকে স্ত্রীর ব্যাপারে তাঁর ভাইদের রটানো বদনাম সম্পর্কে বলেন

The common rabble do directly say / she is a strumpet.

ভিক্টোরিয়ার সুনাম ও সম্ভ্রমের ব্যাপারে তিনি বিচারের মুখোমুখি হন। ক্যামিনোর হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে প্রথমে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু পরবর্তীতে প্রমাণের অভাবে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা চলে পতিতা হবার অভিযোগে। যদিও ভিক্টোরিয়া অপরাধমূলক কোন কাজে জড়িত হননি, তবুও তিনি অভিযুক্ত হন আদালতে। এ প্রসঙ্গে Dena Goldberg-এর মন্তব্য:

The chief objection in The White Devil to law as an adequate instrument for dealing with life is that the structure of law reflects the structure of power in society. People are not equal before the law; they are treated in accordance with their rank, wealth, sex and influence on those in power” (49)।

এই বিচার দৃশ্য প্রমাণ করে নারীর বিরুদ্ধে আইনসিদ্ধ অসমতা। বিচার শুরু হলে প্রশ্ন ওঠে কে হবে ভিটোরিয়ার বিচারক, আইনজীবী ফ্লামিনোকে তাঁর মতামত জানান।

she thinks none should sit upon thy sister but old whore masters.

রসিকতার সঙ্গে ফ্লামিনোর নারীর দালালসূলভ জবাব:

Or Cuckolds, for your Cuckold is your most terrible tickler of lechery whore-masters would serve, for none are judges at tilting but those that have been old tilters.

তথাকথিত এই বিচারে ভিটোরিয়াকে দোষী হিসেবে চিহ্নিত করায় আসলে তা প্রকৃত বিচার হয়নি, হয়েছে এক ধরণের “বিচারিক ধর্ষণ।” কিন্তু ড্যাচেসের বিচারের জন্য কোন আদালতে তাঁকে সোপর্দ করা হয়নি। দুই ভাইয়ের মিলিত প্রতিহিংসাপরায়ণতা তা
ডিটোরিয়া ও ড্যাচেস রেনেসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী

বিচারকের ভূমিকা নিয়েছে। ড্যাচেসকে অতি নিষ্ঠুরতার সঙ্গে মানসিক পীড়ন করা হয়েছে। পাগলা গারদের সব অপ্রকৃতস্থ মানুষদের ড্যাচেসের বন্দীগৃহের সন্নিকটে রাখা হয়েছে। উদ্দেশ্য, তাদের পাগলামী কর্মকাণ্ডে ড্যাচেসকে উত্তক্ত করা। নাটকের চতুর্থ অঙ্কের দ্বিতীয় দৃশ্যে পাগলদের অস্বাভাবিক হট্টগোলে বিস্মিত ড্যাচেস ক্যারিওলাকে জিজ্ঞাসা করেন: “What hideous noise was that?” ক্যারিওলা বিষয়টি তাঁকে ব্যাখ্যা করে এভাবে:

T is the wild consort/ of madmen, lady, which your tyrant brother/ Hath plac’d about your lodging this tyranny./ I think, was never practis’d till this hour.

অপূর্ব এক যুক্তিতে ড্যাচেস ভাইদের এই ষড়যন্ত্রকে স্বাগত জানান :

Indeed, I thank him; nothing but noise and folly/ Can keep me in my right wits; whereas reason/ And silence make me stark mad” (1-8)।

ড্যাচেস শান্তভাবে সবকিছু মেনে নিয়েছেন। কারণ মৃত্যুই তাঁর একমাত্র কামনা। তিনি নিশ্চিত ছিলেন যে তাঁর প্রিয়তম স্বামী ভাইদের নিষ্ঠুরতায় মৃত্যুবরণ করেছেন এবং মৃত্যুর পর তাঁর সঙ্গে মিলিত হওয়াই ছিল ড্যাচেসের একমাত্র স্বপ্ন। এই আচরণে ড্যাচেসের কোন বিদ্রোহ নেই, আছে প্রতিবাদ। নাটকের শুরুতে ভাইদের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে এ্যান্টোনিওকে সঙ্গোপনে বিয়ের মাধ্যমে তিনি এমন বিদ্রোহের সূচনা করেছিলেন যা তাঁর ভাইদের কল্পনার অতীত ছিল।

সঙ্গোপনে বিয়ের অব্যবহতি পরেই এ্যান্টোনিও যখন ভাইদের মনোভাব সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেন, ড্যাচেসের জবাব ছিল বীরোচিত “Do not think of them :/ All discord without thy circumstance/ Is only to be pitied, and not feard “ড্যাচেসের এই আত্মবিশ্বাস ও সাহস তাঁকে ভিক্টোরিয়ার সমান্তরালে নিয়ে যায়। এ প্রসঙ্গে Gayle Green-এর মন্তব্য: “The women in Webster’s tragedies demonstrate, as Shakespeare’s do not, an unambiguous capacity for independent action, moral courage and a heroism that is not circumscribed by gender” (13) 1

এই দুই নারীর সাহস ও মহানুভবতা প্রকাশ পায় মৃত্যুর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে তাঁদের মনোভাব ও আচরণে। ভিটোরিয়া অবজ্ঞা ভরে লোডোভিকোর উদ্দেশ্যে বলেছেন: Yes, I shall welcome death/ As princes do some great ambassadors: / I’ll meet thy weapon half way.” লোডোভিকো তাঁকে জিজ্ঞাসা করে, তিনি কি সম্ভ্রান্ত ও ভয়ে কাঁপছেন। ভিটোরিয়ার সাহসী জবাব : “O thou art deceived, I am too true a woman / Conceit can never kill me: I’ll tell thee what;/ I will not in my death shed one base tear,/ Or if look pale, for want blood, not fear.” দৃঢ় প্রত্যয় সাহসিকতার মৃত্যুকে করেন।

কোন ক্রন্দন আকুতি ছিলনা তাঁর কণ্ঠে। অকুতোভয়ে লোডোভিকোর উদ্যত ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। তাঁর জীবনাবসান ঘটে একজন ব্যভিচারী পতিতা হিসেবে নয়, বরং সমাজের প্রতারণার এক শিকার হিসেবে। মত ড্যাচেসও তাঁর মৃত্যুকালে ছিলেন প্রত্যয়ী অকুতোভয়। লোডোভিকোর ভাইদের বসোলা তাঁকে জিজ্ঞাসা করে, মৃত্যু ভয়ে তিনি ভীত-সন্ত্রস্ত কিনা। ড্যাচেসের দৃঢ় জবাব “Not whit ঘাতক যখন তাঁকে আঘাত তিনি মৃত্যুকে স্বাগত জানান

Come violent death Serve for mandragora make me sleep;/ Go tell my brothers, when laid out. They then may feed quiet.” মৃত্যুর পর তাঁর মহিমান্বিত দেখে ফার্ডিনান্ড আর্তনাদ করে ওঠেন “Cover Mine eyes dazzle she died young.

ভিক্টোরিয়া ড্যাচেস দু’জনেই পিতৃতান্ত্রিক সমাজের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছিলেন তাঁদের কর্মকাণ্ডে ব্রাশিয়ানোর ব্যভিচারী সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে তাঁর বিদ্রোহের প্রকাশ ঘটান। পক্ষান্তরে ড্যাচেস স্বাধীনভাবে দ্বিতীয় স্বামী গ্রহণের মাধ্যমে প্রকাশ তাঁদের মত নারীরা পিতৃতান্ত্রিক সমাজ কাঠামোকে সজোরে আঘাত করেন প্রচণ্ড অবজ্ঞায় আত্মস্বাধীনতায়।

বিদ্রোহী নারী ভিক্টোরিয়া Greene এর মূল্যায়ন যথার্থ

her heroism represents the very antithesis of the Renaissance convention, sexual, subversive, she displays the assertion rather than the subordination self

(15) ড্যাচেস প্রসঙ্গে তাঁর মূল্যায়ন, রেনেসা যুগের বিদ্রোহী হিসেবে তাঁর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য হল defiance rather than compliance, disobedience obedience… and selfhood based on ‘integrity’ in relation to abstract principles of justice and nobility rather than to man” (17)।

ভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস দু’জনেই নারী মুক্তি ও স্বাধীনতার অন্বেষণ করেছেন, যা ছিল তাঁদের জীবন স্বেচ্ছায় পরিচালনার সহায়ক। নাটক দু’টির সবচেয়ে বড় ট্রাজেডী হচ্ছে, যদিও কেন্দ্রীয় নারী চরিত্ররা নিজেদের মুক্তি স্বাধীনতার অন্বেষণে বিদ্রোহী হয়েছেন, কিন্তু নাটকের সমাপ্তিতে পুরুষের হাতেই তাঁদের নারীমুক্তি ভাবনার সমাপ্তি ঘটেছে নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে। আর এই ভিটোরিয়া ও ড্যাচেস রেনেসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী হত্যাকাণ্ড ভিটোরিয়া ও ড্যাচেসকে রূপান্তরিত করেছে রেনেঁসা যুগের নাট্য সাহিত্যে নারী বিদ্রোহের প্রতীকী চরিত্রে।

 

ভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস : রেনেঁসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী
ভিক্টোরিয়া ও ড্যাচেস : রেনেঁসা যুগের দুই বিদ্রোহী নারী

 

সহায়ক গ্রন্থ :

পী রস : The World’s Perspective John Webster and the Jacobean Drama, নিউ জার্সি: Rutgers University Press, ১৯৮৩।

ডিমফনা ক্যালাঘান Woman and Gender in Renaissance Tragedy:

A Study of King Lear, Othello, The Duchess of Malfi and

the White Devil. নিউ জার্সি: Humanities, ১৯৮৯।

ডেনা গোল্ডবার্গ : Between Worlds: A Study of the Plays of John Webster, অন্টারিও: Wilfrid Laurier University Press, ১৯৮৭। গেইল গ্রীন: Women on Trial in Shakespeare and Webster : The Mettle of Sex, Topic 36 (1982), 5-19 1

রুথ কেলসো Doctrine for the Lady of the Renaissance, ঊর্বানা :

University of Illinois Press, ১৯৫৬।

আরও পড়ুন:

মন্তব্য করুন